উত্তরবঙ্গ

রবীন্দ্রনাথ ঘোষ গোষ্ঠী এবং পার্থপ্রতিম রায় গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ তুফানগঞ্জে। আহত কমপক্ষে ২০।

কোচবিহার, ২৬ সেপ্টেম্বরঃ আবারও তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল কোচবিহারে। এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তপ্ত কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ বিধানসভার দেওচরাই গ্রাম পঞ্চায়েতের কৃষ্ণপুর এলাকা। সংঘর্ষে আহত অন্তত পক্ষে ২০ জন। আহতদের মধ্যে বেশির ভাগ তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে এবং কোচবিহার এমজেএন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রাক্তন তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায় এবং প্রাক্তন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ-এর অনুগামীদের মধ্যে এই গোষ্ঠী সংঘর্ষ বলে জানা গিয়েছে। আজ সকালে ওই এলাকায় রবীন্দ্রনাথ ঘোষ অনুগামী মজিবুর রহমান এবং পার্থ প্রতিম রায় অনুগামী ফারুক মন্ডলের গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়। মজিবুর রহমান গোষ্ঠীর লোকেরা, ফারুক মন্ডল গোষ্ঠীর লোকেদের ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। বেশ কয়েকজনের মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁদের উদ্ধার করে তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে এবং কোচবিহার এমজেএন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়।

যদিও গোষ্ঠীকোন্দলের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি গীরিন্দ্রনাথ বর্মন। তবে ওই এলাকায় অঞ্চল সভাপতির পদ নিয়ে যে দলের মধ্যেই টানাপোড়েন রয়েছে, তা স্বীকার করে নিয়েছেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি। বিজপির উস্কানিতে এবং বিজেপির পাতা ফাঁদে তৃণমূল কর্মীরা পা দেওয়াতেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছেন গীরিন্দ্রনাথ বর্মন।