উত্তরবঙ্গ

দীর্ঘ দেড় বছর পর ফের চালু বেঙ্গল সাফারি পার্কের হাতি সাফারি। খুশী পর্যটক থেকে পর্যটন ব্যবসায়ীরা।

শিলিগুড়ি, ২২ সেপ্টেম্বরঃ একটানা দেড় বছর বন্ধ থাকার পর শিলিগুড়ি সংলগ্ন বেঙ্গল সাফারি পার্কে ফের শুরু হলো হাতি সাফারি। স্বাভাবিকভাবেই বুধবার পার্কে আসা পর্যটকদের কাছে তা ছিলো বাড়তি পাওনা। আর সুযোগ পেয়েই হাতির পীঠে চড়ে বসলেন পর্যটকেরা। আপাতত সারাদিনে ৬ বার হবে সাফারি। সাফারির জন্য মাথাপিছু ৩০০ টাকা করে ধার্য করা হয়েছে। প্রথম দিনেই বেশ কয়েকজন পর্যটক হাতি সাফারি করেছেন বলে জানিয়েছেন বেঙ্গল সাফারি কর্তৃপক্ষ।

শিলিগুড়ি থেকে সেবক যাওয়ার পথেই ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে রয়েছে বেঙ্গল সাফারি পার্ক। করোনার জেরে গত সাড়ে চার মাস ধরে তা বন্ধ থাকার পর, ১৫ সেপ্টেম্বর খোলে এই সাফারি পার্ক। বাঘ সাফারি থেকে শুরু করে হরিণ, ভাল্লুক, চিতা সাফারিও শুরু হয়। কিন্তু বন্ধ ছিলো হাতি সাফারি। বুধবার থেকে সেই সাফারিও শুরু হয়ে গেলো। এদিন পার্কে থাকা দুই হাতি লক্ষ্মী ও উর্মিলাও বেশ খোশ মেজাজেই সকলকে পিঠে চড়ালো। এমনকি পর্যটকদের সাথে দেদার ছবিও তুললো লক্ষ্মীরা।

জলপাইগুড়ি থেকে আসা শর্মিষ্ঠা মজুমদার বলেন, “আমরা সাফারি পার্কেই ঘুরতে এসেছিলাম। এখানে এসে জানতে পারি হাতি সাফারিও শুরুও হয়েছে। তাই আর লোভ সামলাতে পারিনি। সাথে সাথে টিকিট কেটে আমরা চড়ে ফেললাম। খুব ভালো লাগল একটা দারুণ অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরলাম।“

অন্যদিকে হ্যামিল্টনগঞ্জ থেকে আসা বরুণ প্রধান বলেন, “অনেক দিন ধরে হাতি সাফারি করার ইচ্ছা ছিলো। এর আগেও এসেছিলাম, কিন্তু হাতি সাফারি বন্ধ ছিলো। এদিন এসে যখনই শুনেছি হাতির পিঠে চড়ে পার্কে ঘুরতে পারব। সাথে সাথে টিকিট কেটে চড়ে ফেললাম হাতির পীঠে। দারুণ মজা হলো, খুব ভালো লাগল।“

বেঙ্গল সাফারি পার্কে রয়েছে লক্ষ্মী ও উর্মিলা নামে দুটি কুনকি হাতি। তারাই সকালে ও বিকালে দুই বেলা পর্যটকদের পীঠে নিয়ে ঘোরায়। আবার পর্যটকদের আবদার মেটাতে তাদের সাথে ছবিও তোলে তারা। পার্কের ডিরেক্টর বাদল দেবনাথ বলেন, “আধঘন্টা পার্কের জঙ্গলে হাতির পিঠে চড়ে সাফারি করা যাবে। তার জন্য মাথাপিছু ৩০০ টাকা করে টিকিট কাটতে হবে। ৬জন করে একটি সাফারিতে যেতে পারবেন। করোনার প্রথম ঢেউ এর সময় আমরা এই সাফারি বন্ধ করে দিয়েছিলাম। মাঝে পার্ক খুললেও হাতি সাফারি বন্ধই ছিলো। এবার সকলের টিকাকরণ হয়ে যাওয়াতে আমরা আবার এই সাফারি চালু করে দিলাম। কারণ হাতি সাফারির একটা চাহিদা সবসময় রয়েছে।“

সাফারি পার্ক খুলতেই পর্যটকদের আনাগোনা শুরু হয়েছে। বেঙ্গল সাফারি পার্কে দেড় বছর পর হাতি সাফারি শুরু হওয়ায় খুশী পর্যটক থেকে পর্যটন ব্যবসায়ীরা। এর ফলে শিলিগুড়িকে কেন্দ্র করে পর্যটকদের আকর্ষণ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন পর্যটন বিশেষজ্ঞরা। আর এবার হাতি সাফারি চালু হওয়ায় আরও ভিড় বাড়বে বলে আশাবাদী পার্ক কর্তৃপক্ষ।