উত্তরবঙ্গ

শিশুদের জ্বর পরিস্থিতি স্বাভাবিক। উত্তরবঙ্গ মেডিকেলে আসছে ভাইরাল জ্বর পরীক্ষা কিট। পর্যালোচনা বৈঠক মেডিকেলে।

শিলিগুড়ি, ২১ সেপ্টেম্বরঃ শিশুদের জ্বর নিয়ে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে আয়োজিত হল পর্যালোচনা বৈঠক। গত দুই সপ্তাহ ধরে শিশুদের যে ভাইরাল জ্বর দেখ গিয়েছিল, সেই ভাইরাল জ্বর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিকের দিকে রয়েছে বলে পর্যালোচনা বৈঠকের শেষে জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। অন্যদিকে, অতিসত্ত্বর উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভাইরাল জ্বর পরীক্ষা করার কিট আসতে চলেছে বলে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবারের এই রিভিউ মিটিং-এ উপস্থিত ছিলেন দার্জিলিং জেলা শাসক এস পুন্নমবলম, উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ সুপার সঞ্জয় মল্লিক, মেডিকেল কলেজ প্রিন্সিপাল ইন্দ্রজিৎ সাহা সহ বিশিষ্ট চিকিৎসকেরা।

পর্যালোচনা বৈঠক শেষে দার্জিলিং জেলাশাসক এস পুন্নমবলম সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান, গত দুই সপ্তাহ ধরে শিশুদের যে ভাইরাল জ্বর দেখা গিয়েছে, তা এখন কিছুটা স্বাভাবিক রয়েছে। প্রত্যেকদিন ১০ থেকে ১৫ জন শিশু উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। তবে, যে সমস্ত শিশুরা জ্বর সর্দি-কাশি নিয়ে ভর্তি হচ্ছে, তারা দু-তিনদিন থাকার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছে।

প্রত্যেক বছর পূজার আগে এই ধরনের ভাইরাল জ্বর হয়ে থাকলেও, অন্যান্যবারের তুলনায় এই বছর আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা বেশি হওয়ায়, সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। তবে, সমস্ত বিষয়টি নজরে রাখা হয়েছে বলে পর্যালোচনা বৈঠক শেষে জানানো হয়েছে। উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পেডিয়াট্রিক ও অন্যান্য ওয়ার্ড মিলিয়ে শিশুদের জন্য ১১৫ টি বেড রয়েছে। যদি পরবর্তীতে আক্রান্ত শিশু ভর্তির সংখ্যা বেড়ে যায়, তাহলে কোভিড ওয়ার্ডে যে ৩০ টি বেড দেওয়া হয়েছিল, সেগুলি পুনরায় ফিরিয়ে নিয়ে আসা হবে বলে জানানো হয়েছে।

ভাইরাল জ্বর পরীক্ষা করার যে কিট রয়েছে, সেটি উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে না থাকায়, বাচ্চাদের নমুনা সংগ্রহ করে কলকাতায় পাঠানো হয়। পরীক্ষার জন্য এই কিট অতিসত্ত্বর উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসতে চলেছে। স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে এর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে পর্যালোচনা বৈঠক শেষে জানানো হয়েছে।