রাজ্য

শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক পদ প্রত্যাখ্যান করলেন অশোক ভট্টাচার্য্য

শিলিগুড়ি, ১৫ মেঃ শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক হতে চান না পুর নিগমের বিদায়ী মেয়র অশোক ভট্টাচার্য। পত্রপাঠ সরকারের সেই প্রস্তাব খারিজ করলেন শিলিগুড়ির মেয়র। এই বর্ষীয়াণ বাম নেতার বক্তব্য, শিলিগুড়ির ক্ষেত্রে রাজ্যের তরফে প্রশাসক বোর্ড গঠন করার যে প্রস্তাব এসেছে, সেখানে বিরোধী দল তৃণমূল কংগ্রেসের ৫ জনকে রাখা হয়েছে। অথচ রাজ্যের অন্য যেসব পুরসভার ক্ষেত্রে প্রশাসক বোর্ড তৈরি হয়েছে সেখানে বিরোধীদের স্থান নেই। অশোকবাবুর দাবি, এই সিদ্ধান্ত অনৈতিক এবং শিলিগুড়ির মানুষের পক্ষে অমপানজনক। তাই তিনি সেই প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান হতে চান না।

শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক বোর্ড নিয়ে একই বক্তব্য পেশ করেছেন দার্জিলিং জেলা সিপিআইএম সম্পাদক জীবেশ সরকারও। যেহেতু শিলিগুড়ি পুরনিগমে বামপন্থী বোর্ড রয়েছে, তাই, শিলিগুড়ি পুর নিগমের প্রশাসনিক বোর্ডে অনৈতিক ভাবে বিরোধীদের রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দার্জিলিং জেলা সিপিআইএম সম্পাদক। তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত রাজ্য সরকারের সংকীর্ণ রাজনীতির বিরোধীতা করেই, দার্জিলিং জেলা সিপিআইএম-এর পক্ষ থেকে এই অনৈতিক প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জীবেশ সরকার।

অন্যদিকে, অশোক ভট্টাচার্য ও জীবেশ সরকারের এই সিদ্ধান্তকে দ্বিচারিতা বলে দাবি করেছেন পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব। অশোকবাবুরাই প্রশাসক বোর্ডের সদস্যদের নাম-সহ রাজ্যের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছিলেন বলে দাবী করেছেন গৌতম দেব।

আগামী ১৭ ই মে, মেয়াদ শেষ হতে চলেছে শিলিগুড়ি পুরনিগমের। গত ৫ বছর ধরে শিলিগুড়ি পুর নিগম নিয়ে একাধিকবার খবরের শিরোনামে এসেছে অশোক-গৌতম বাক যুদ্ধ। শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক পদ নিয়ে রাজ্যের প্রস্তাব খারিজ প্রসঙ্গ, আরও একবার বাম-তৃণমূল তরজাকে উস্কে দিলো বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল।

শুরু হচ্ছে বাগডোগরায় বিমান চলাচল, সপ্তাহে চলবে মাত্র ৮ টি বিমান Read More..